জন্মের পর থেকেই ক্রাউনের লোভ!

শোবিজ ডেস্ক: আশা ছিল, চেষ্টা ছিল। হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ টপকে ফাইনালের মঞ্চেও ছিল পদচারণা। কিন্তু মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট জেতা হয়নি বাংলাদেশি মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীর। ‘মিসওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ এর মুকুট জয় করা ঐশী এবারের মিসওয়ার্ল্ড আসরে বিচারকসহ বিশ্বের অনেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছিলেন।

বিশ্বের আলো ঝলমলে মঞ্চ দাপিয়ে এখন দেশেই রয়েছেন ঐশী। দেশের শোবিজ অঙ্গনের বিভিন্ন মাধ্যমে দেখা যাবে ঐশীকে। কাজ করতে চান বড় পর্দায়। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ঐশীকে দেখা যায়। বর্তমানে ঢাকার মহাখালীতে বসবাসকারী ঐশী নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করেছেন,’সব রেখে মিস ওয়ার্ল্ড বংলাদেশে কেন আসলেন?’ উত্তরটাও তিনি দিয়েছেন, ‘কারণ জন্মের পর থেকেই ক্রাউনের লোভ।’

অবশ্য এটা মজা করেই বলেছিলেন, কারণ ঐশী এই প্রশ্নোত্তরের সাথে দুটো ছবি যুক্ত করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি ছবিতে মাথায় ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ এর মুকুট পরে রয়েছেন। অপর আরেকটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে শিশু ঐশীর মাথায় মুকুট।

ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ ২০১৮ নির্বাচিত হয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশী। প্রথম রানার আপ নিশাত নাওয়ার সালওয়া এবং দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন নাজিবা বুশরা। মুকুট জয়ের পাশাপাশি বেস্ট অ্যাপিয়ারেন্স অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছেন ঐশী।

জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশী পিরোজপুরের মেয়ে। এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম নেওয়া জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশী গত বছর এইচএসসি শেষ করে জুলাই মাসে ঢাকায় এসেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কোচিং করার জন্য। যখন চোখেমুখে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির লড়াইয়ের স্বপ্ন তখনই খোঁজ পান মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮ এরে আবেদন করার খবর।

কৌতুহল আর আগ্রহ মাথার চিন্তাকে যেন কিছুটা এলোমেলোই করে দিল। আবেদন করে বসলেন। দেখতে দেখতে মিসওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিলেন। সেরা দশে জায়গা পাওয়ার পর নিজের আত্মবিশ্বাস আরও বেড়ে যায়।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-এর গ্র্যান্ড ফিনালেতে চ্যাম্পিয়ন হন ঐশী। অন্তর শোবিজের আয়োজনে সেদিন সেরা ১০ সুন্দরীর মধ্য থেকে তাকে সেরা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। এরপর তিনি বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পান।

আপনার মন্তব্য দিন