পুত্র সন্তানের মা হলেন কোয়েল মল্লিক

কলকাতা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা কোয়েল মল্লিক’কে নিয়ে তাঁর ভক্তকূলের আগ্রহের শেষ নেই। মিডিয়াতে যখন থেকেই খবর এসেছে মা হচ্ছেন কোয়েল মল্লিক,তখন থেকে তাঁকে নিয়ে ভক্তদের উৎসাহের শেষ নেই।কবে কোয়েল হাসপাতালে যাবেন? কোন হাসপাতালে জন্ম নেবে তাঁর সন্তান— এই নিয়ে ভক্তদের মধ্যে জল্পনা ছিল তুঙ্গে। ইন্ডাস্ট্রির খুব কাছের বন্ধুরাই শুধু জানতেন, ৫ মে কোয়েল হাসপাতালে ভর্তি হবেন। তাঁরাও মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন। কারণ একটাই, বিয়ে থেকে সন্তানের জন্ম, কোনও বিষয়ে প্রচার চাননি নিসপাল সিংহ রানে।

কোয়েলের মাতৃত্বের খবরও প্রকাশ্যে‌ আসে কয়েক মাস আগে, ফেব্রুয়ারিতে নিজের বিবাহবার্ষিকীতে ইনস্টাগ্রামে সুখবর জানান কোয়েল নিজেই। মাঝে সোশ্যাল মিডিয়াতে নিজেই বেবি বাম্পের ছবি দেন। সেই পোস্ট ভাইরাল হয়। কয়েক দিন আগে ইনস্টাতে ববি প্রিন্টের জামা পরে সূর্যমুখী হাতে নিজের হাসিমুখের ছবি পোস্ট করে নেটাগরিকদের আগ্রহ বাড়িয়ে দেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার (৫ মে) সকালে কোয়েল পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন, এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পরেই জিনস আর টি শার্ট পরা কোয়েলের ছবি ঘুরতে শুরু করে। এই ছবিতে দেখা যায় তিনি একটি শিশুকে কোলে নিয়ে আছেন। এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় কোয়েলের সদ্যোজাত সন্তানের ছবি হিসেবে ভাইরাল হয়ে যায়। আসলে এই শিশু কোয়েলের বান্ধবীর সন্তান। কোয়েলের ভক্তরা বুঝতে পারেন না, জিনস আর টি শার্ট পরে কোয়েল তাঁর সদ্যোজাত সন্তানকে নিয়ে কেমন করে ছবি দিলেন? সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বেশ কিছু ক্ষণ পরেই কোয়েল সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যকাউন্ট থেকে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যায়, কোয়েল হাসপাতালের পোশাকে, পাশে তাঁর সদ্যোজাত সন্তান আর স্বামী রানে। নাম না জানিয়ে কোয়েল লেখেন, “আমাদের ছোট্ট সোনা আজ সকালে এসেছে! আমরা এই খুশি সবার সঙ্গে ভাগ করে নিতে চাই এবং চাই আমাদের ছেলেকে আপনার আশীর্বাদ করুন।’’

আপাতত সদ্যোজাতকে নিয়ে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন কোয়েল। মা এবং সন্তান, দু’জনেই সুস্থ রয়েছেন। তবে সংক্রমণের আশঙ্কায় কোয়েলের স্বামী রানে ছাড়া আর কাউকে সেই হাসপাতালে আপাতত ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

ছেলের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই শুভেচ্ছার ঢল নেমেছে অনুরাগীদের। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন শুভশ্রী, রাইমা-সহ টলিপাড়ায় কোয়েলের অন্য সেলেব বন্ধুরাও। করোনা-কালে এই এক টুকরো খুশির খবর যেন তাজা বাতাস ছড়িয়ে দিয়েছে টলিপাড়ার অন্দরে।

আপনার মন্তব্য দিন